1. admin@bd-journalist.com : বিডি জার্নালিস্ট : বিডি জার্নালিস্ট
  2. miraj20@gmail.com : নিজস্ব প্রতিবেদক : নিজস্ব প্রতিবেদক
  3. commercial.rased@gmail.com : Staff Reporter : Staff Reporter
  4. Bangladeshkonthosor@gmail.com : অনলাইন ডেক্স : অনলাইন ডেক্স
  5. newuser@mail.com : Staff Reporter : Staff Reporter
বুধবার, ২০ অক্টোবর ২০২১, ১১:০৩ অপরাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ :
পালিয়ে যায় হাসপাতালের কর্মকর্তা-কর্মচারীরা নোয়াখালীতে চিকিৎসা না দেওয়ায় রোগির মৃত্যুর অভিযোগ ভ্রমন নিষেধাজ্ঞা তুলে নিলো ওমান রামপালের খাঁনজাহান আলী বিমান বন্দরের নির্মাণ কাজ পরিদর্শন র্দীঘ ৫০ বছরের সফলতার গল্প শোনালেন রুহুল আমিন গাজীপুরের টঙ্গীতে ডাকাতির প্রস্তুতিকালে দুই জন ডাকাত গ্রেফতার শেষ হলো পদ্মা সেতুর রোডওয়ে স্লাব বসানোর কাজ বরিশালের ইউএনও ওসি সহ ১১৪ জনের বিরুদ্ধে মামলা,খতিয়ে দেখবে পিবিআই ফজলুল হক বাবুর জন্মদিনে জানালো ১৫ বছর আগের কঠিন সিদ্ধান্তের কথা টঙ্গীতে শোক দিবস উপলক্ষে আলােচনা সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত চার দিন পরে মধুমতি নদীতে নিখোঁজ শ্রমিকের মরদেহ উদ্ধার

ধুমধাম করে বৃদ্ধ বাবার বিয়ে দিলেন ছেলে

বিডি জার্নালিস্ট ডেস্ক :
  • আপডেট সময় শনিবার, ৫ ডিসেম্বর, ২০২০

জীবনের গতিপথ যে কোনো সময় যে কোনো দিকে মোড় নিতে পারে। আর সে সঙ্গে আমাদেরও মানিয়ে নিতে হয় জীবনের সঙ্গে। এমনই এক উদাহরণ সৃষ্টি করলেন ভারতের এক যুবক। নিজে দাঁড়িয়ে থেকে ধুমধাম করে দিলেন বাবার বিয়ে।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম জী নিউজ’র এক প্রতিবেদন থেকে জানা গেছে, সম্প্রতি ভারতের পশ্চিমবঙ্গে তরুণ কান্তি পাল ৬৬ বছর বয়সে ৬৩ বছরের স্বপ্না রায়ের সঙ্গে বিয়ে করে সোশ্যাল মিডিয়ায় হইচই ফেলে দিয়েছেন। তাদের প্রেমের স্বীকৃতি দিয়ে বিয়ের আয়োজন করেছেন তরুণ কান্তি পালের একমাত্র ছেলে সায়ন পাল।

১০ বছর আগে প্রথম ভালোবাসার মানুষকে হারিয়েছিলেন তরুণ কান্তি পাল। এখন একলা থাকাটা তার অভ্যাস  হয়ে উঠেছে। ছেলে কানাডা প্রবাসী হওয়ায় তার একাকিত্ব দিন দিন বাড়ছিল। এরইমধ্যে তরুণ অবসরে যান। একাকিত্বের ভর আরো বাড়ে। ভট্টনগরের রামকৃষ্ণ মঠে প্রতিদিন যেতেন তরুণ। বছর দুয়েক আগে সেখানেই স্বপ্না রায়ের সঙ্গে প্রথম দেখা হয়। এরপর, মাঝে মাঝে দেখা, তারপর ফোনালাপ, তারপর দিন রাত কথা আদান প্রদান। একপর্যায়ে স্বপ্না রায় ভালোবাসার কথা জানায় তরুণ কান্তিকে। এরপর তারা একসঙ্গে থাকতে সময় কাটাতে চায়। তরুণ ছেলের মতামত চাইলে তিনিও সম্পতি দিয়ে বিয়ের আয়োজনটি করেন। বাবার বিয়ে দিয়ে সায়ন পাল খুশি।

তরুণ কান্তি পাল সাংবাদিকদের জানান, জীবন একটি দীর্ঘ যাত্রা। সেই যাত্রায় কাউকে সঙ্গে লাগে। দুর্ভাগ্যক্রমে যদি সঙ্গী চলে যায় ছেড়ে। তবে তাদের অসমাপ্ত যাত্রায় অন্য কাউকে অংশীদার হিসাবে বেছে নিতে হয়।

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর
© All rights reserved © 2021 bd-journalist.com
Theme Customized By newspadma.Com