1. admin@bd-journalist.com : বিডি জার্নালিস্ট : বিডি জার্নালিস্ট
  2. miraj20@gmail.com : নিজস্ব প্রতিবেদক : নিজস্ব প্রতিবেদক
  3. commercial.rased@gmail.com : Staff Reporter : Staff Reporter
  4. Bangladeshkonthosor@gmail.com : অনলাইন ডেক্স : অনলাইন ডেক্স
  5. newuser@mail.com : Staff Reporter : Staff Reporter
বুধবার, ১৩ অক্টোবর ২০২১, ১০:২৬ অপরাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ :
পালিয়ে যায় হাসপাতালের কর্মকর্তা-কর্মচারীরা নোয়াখালীতে চিকিৎসা না দেওয়ায় রোগির মৃত্যুর অভিযোগ ভ্রমন নিষেধাজ্ঞা তুলে নিলো ওমান রামপালের খাঁনজাহান আলী বিমান বন্দরের নির্মাণ কাজ পরিদর্শন র্দীঘ ৫০ বছরের সফলতার গল্প শোনালেন রুহুল আমিন গাজীপুরের টঙ্গীতে ডাকাতির প্রস্তুতিকালে দুই জন ডাকাত গ্রেফতার শেষ হলো পদ্মা সেতুর রোডওয়ে স্লাব বসানোর কাজ বরিশালের ইউএনও ওসি সহ ১১৪ জনের বিরুদ্ধে মামলা,খতিয়ে দেখবে পিবিআই ফজলুল হক বাবুর জন্মদিনে জানালো ১৫ বছর আগের কঠিন সিদ্ধান্তের কথা টঙ্গীতে শোক দিবস উপলক্ষে আলােচনা সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত চার দিন পরে মধুমতি নদীতে নিখোঁজ শ্রমিকের মরদেহ উদ্ধার

নেই দুধের ন্যায্য মূল্য, মাথায় হাত পড়েছে গাভী পালনকারীদের

মোঃ রাশেদ মিয়া, সারিয়াকান্দি (বগুড়া) প্রতিনিধি
  • আপডেট সময় শনিবার, ৩ জুলাই, ২০২১

আজ ০৩ জুলাই, ২০২১ (শনিবার) সকালে সারিয়াকান্দি দুধ বাজারে সরেজমিনে লক্ষ্য করা যায়, খামারিদের উপচে পড়া ভিড়। মানা হচ্ছে না কোনো স্বাস্থ্যবিধি।

স্বাস্থ্যবিধি না মানার সিদ্ধান্তে কিছু খামারি অনলাইন গণমাধ্যম কে জানায়, আমরা মানুষ থেকে মানসিক রোগীতে পরিনত হয়ে যাচ্ছি। কি হবে স্বাস্থ্যবিধি মেনে।

এবং সরকার ঘোষিত লকডাউনের কারণে বাইরে থেকে দুধ ব্যবসায়ী না আসায় এবং দুধের ন্যায্য দাম না পাওয়াতে মাথায় হাত পড়েছে দুগ্ধ খামারিদের।

নদী ভাঙন কবলিত এলাকায় জীবন যাপন কতটা কষ্টের তা আমরা ছাড়া কেউ বুঝতে পারবে না। একদিকে চলছে কঠোর লকডাউন অপরদিকে অতি বৃষ্টিতে বন্যার পূর্বাভাস দেখা দিয়েছে।

লকডাউনে আমরা দুধের ন্যায্য মূল্য পাচ্ছি না, চারপাশে পানিতে ভরপুর হয়ে যাচ্ছে, গরুর খাদ্যের যোগান দিতে আমরা হিমসিম খাচ্ছি।

এমতাবস্থায়, আমরা মানসিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়ে পড়েছি, সংসার চালানো খুব কষ্টকর হয়ে পড়েছে।

তারা আরও জানায়, দুধের দাম ৪০ থেকে ৫০ টাকা লিটার হলেও চলমান লকডাউনের কারণে এখন তাদের ২০ থেকে ২৫ টাকা দরে বিক্রয় করতে হয় দুধ।

এতে প্রতিদিন লোকসান গুনতে হচ্ছে এই এলাকার খামারিদের। গরু লালনের খরচও না ওঠায় আগ্রহ হারিয়ে ফেলছে অনেক খামারি। খামারিরা বলেন তারা যেন এই পেশাকে ধরে রাখতে পারে সেই দিকে যেন সরকার নজর দেয়।

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর
© All rights reserved © 2021 bd-journalist.com
Theme Customized By newspadma.Com