1. admin@bd-journalist.com : বিডি জার্নালিস্ট : বিডি জার্নালিস্ট
  2. miraj20@gmail.com : নিজস্ব প্রতিবেদক : নিজস্ব প্রতিবেদক
  3. commercial.rased@gmail.com : Staff Reporter : Staff Reporter
  4. Bangladeshkonthosor@gmail.com : অনলাইন ডেক্স : অনলাইন ডেক্স
  5. newuser@mail.com : Staff Reporter : Staff Reporter
রবিবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১০:৪৮ অপরাহ্ন

৪ মামলায় ১৪ দিনের রিমান্ডে হেলেনা জাহাঙ্গীর

বার্তা ডেস্ক
  • আপডেট সময় মঙ্গলবার, ৩ আগস্ট, ২০২১

এফবিসিসিআইয়ের সাবেক পরিচালক হেলেনা জাহাঙ্গীরকে ১৪ দিনের রিমান্ডে নেওয়া হয়েছে। আজ মঙ্গলবার ঢাকার মুখ্য মহানগর হাকিম আদালত হেলেনার বিরুদ্ধে করা চারটি মামলায় পৃথক আদেশে এই রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

গুলশান থানায় করা ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের মামলায় তিন দিনের রিমান্ড শেষে আজ আদালতে হাজির করা হয় হেলেনাকে। ওই মামলায় আবারও ১০ দিনের রিমান্ডে নেওয়ার আবেদন করা হয়। ঢাকার মহানগর হাকিম নিভানা খায়ের জেসি তিন দিন রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

 

এ ছাড়া গত শনিবার গুলশান থানায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইন, বিশেষ ক্ষমতা আইন, বন্যপ্রাণী সংরক্ষণ আইন ও টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ আইনে করা মামলায় তদন্ত কর্মকর্তা পরিদর্শক শাহিদুর রহমান ঢাকার মুখ্য মহানগর হাকিম আদালতে হেলেনা জাহাঙ্গীরকে গ্রেপ্তার দেখানোর আবেদন করেন। একই সঙ্গে এই মামলায় পাঁচ দিনের রিমান্ডের আবেদন করেন। ওই মামলায় শুনানি শেষে একই আদালত তিন দিন রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

অন্য দিকে গত শনিবার পল্লবী থানায় দায়ের করা টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ আইনের মামলায় হেলেনা জাহাঙ্গীরকে সাত দিনের রিমান্ডে নেওয়ার আবেদন করেন তদন্ত কর্মকর্তা পরিদর্শক ইয়ামিন কবির। সঙ্গে এই মামলায় গ্রেপ্তার দেখানোর আবেদন জানানো হয়। ঢাকার মহানগর হাকিম শাহিনুর রহমানের আদালতে মামলাটির শুনানি হয়। শুনানি শেষে তিনি চার দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন। একই আদালতে পল্লবী থানায় করা একটি প্রতারণার মামলায় সাত দিনের রিমান্ডের আবেদন শুনানি হয়। ওই মামলায় আদালত চার দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

গত সোমবার আব্দুর রহমান নামের এক ব্যক্তি হেলেনা জাহাঙ্গীরের বিরুদ্ধে প্রতারণার মামলাটি করেন পল্লবী থানায়।

উল্লেখ্য, গুলশান থানায় করা ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের মামলায় হেলেনাকে গত শুক্রবার তিন দিনের রিমান্ডে নেওয়া হয়। এর আগে বৃহস্পতিবার রাতে রাজধানীর গুলশান–২ এলাকায় নিজ বাসা থেকে তাঁকে আটক করে র‍্যাব।

হেলেনা জাহাঙ্গীরের বাসায় বিপুল পরিমাণ বিদেশি মদ, ইয়াবা ও হরিণের চামড়া, ক্যাসিনো সরঞ্জাম, ওয়াকিটকি উদ্ধার করে র‍্যাব। এ ছাড়া বৈদেশিক মুদ্রা উদ্ধার করা হয়। এ ঘটনায় র‍্যাব বাদী হয়ে গুলশান থানায় তাঁর বিরুদ্ধে দুটি মামলা করে।

মাদক আইন, বন্যপ্রাণী আইন, বিশেষ ক্ষমতা আইন ও টেলিযোগাযোগ আইনে একটি এবং ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে একটি মামলা হয়। ওই দিন রাতেই পল্লবীতে জয়যাত্রা টেলিভিশন অফিসে অভিযান চালায় র‍্যাব। অনুমোদন ছাড়া আইপি টেলিভিশন সম্প্রচার করায় হেলেনা জাহাঙ্গীরের বিরুদ্ধে টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ আইনে পল্লবী থানায় আরেকটি মামলা হয়।

এসব ঘটনার আগে আওয়ামী লীগের মহিলা বিষয়ক উপকমিটির সদস্যপদ থেকে হেলেনা জাহাঙ্গীরকে অব্যাহতি দেওয়া হয়। এ সংক্রান্ত বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে তাঁর সাম্প্রতিক কর্মকাণ্ড সংগঠনের নীতিবহির্ভূত হওয়ায় আওয়ামী লীগের মহিলাবিষয়ক উপকমিটির সদস্যপদ হতে তাঁকে অব্যাহতি দেওয়া হয়েছে।

সম্প্রতি আওয়ামী চাকরিজীবী লীগ নামে একটি সংগঠন খুলে ব্যাপক সমালোচনার মুখে পড়েন হেলেনা জাহাঙ্গীর। সংগঠনের কেন্দ্রীয় সভাপতি হিসেবে তিনি ও সাধারণ সম্পাদক হিসেবে মাহবুব মনিরের নাম উল্লেখ করা হয়।

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর
© All rights reserved © 2021 bd-journalist.com
Theme Customized By newspadma.Com