1. admin@bd-journalist.com : বিডি জার্নালিস্ট : বিডি জার্নালিস্ট
  2. miraj20@gmail.com : নিজস্ব প্রতিবেদক : নিজস্ব প্রতিবেদক
  3. commercial.rased@gmail.com : Staff Reporter : Staff Reporter
  4. Bangladeshkonthosor@gmail.com : অনলাইন ডেক্স : অনলাইন ডেক্স
  5. newuser@mail.com : Staff Reporter : Staff Reporter
বুধবার, ২০ অক্টোবর ২০২১, ০১:২৩ অপরাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ :
পালিয়ে যায় হাসপাতালের কর্মকর্তা-কর্মচারীরা নোয়াখালীতে চিকিৎসা না দেওয়ায় রোগির মৃত্যুর অভিযোগ ভ্রমন নিষেধাজ্ঞা তুলে নিলো ওমান রামপালের খাঁনজাহান আলী বিমান বন্দরের নির্মাণ কাজ পরিদর্শন র্দীঘ ৫০ বছরের সফলতার গল্প শোনালেন রুহুল আমিন গাজীপুরের টঙ্গীতে ডাকাতির প্রস্তুতিকালে দুই জন ডাকাত গ্রেফতার শেষ হলো পদ্মা সেতুর রোডওয়ে স্লাব বসানোর কাজ বরিশালের ইউএনও ওসি সহ ১১৪ জনের বিরুদ্ধে মামলা,খতিয়ে দেখবে পিবিআই ফজলুল হক বাবুর জন্মদিনে জানালো ১৫ বছর আগের কঠিন সিদ্ধান্তের কথা টঙ্গীতে শোক দিবস উপলক্ষে আলােচনা সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত চার দিন পরে মধুমতি নদীতে নিখোঁজ শ্রমিকের মরদেহ উদ্ধার

পালিয়ে যায় হাসপাতালের কর্মকর্তা-কর্মচারীরা নোয়াখালীতে চিকিৎসা না দেওয়ায় রোগির মৃত্যুর অভিযোগ

নোয়াখালী প্রতিনিধিঃ
  • আপডেট সময় শুক্রবার, ৮ অক্টোবর, ২০২১

নোয়াখালী জেলা শহর মাইজদীর মাদারল্যান্ড হসপিটাল প্রা: লি: কৃর্তপক্ষের বিরুদ্ধে চিকিৎসা না দেওয়ায় কামাল উদ্দিন (৫০) নামের এক রোগির মৃত্যুর অভিযোগ উঠেছে। ঘটনার পর হাসপাতালে দায়িত্বরত কর্মকর্তা ও কর্মচারীরা পালিয়ে যায়। পরবর্তীতে পুলিশের উপস্থিতিতে পুনঃরায় তারা হাসপাতালে আসে। নিহতের পরিবারের অভিযোগ বুকে ব্যাথা নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি ৩ঘন্টায় কোন চিকিৎসা না দেওয়া কামাল উদ্দিন মারা গেছেন। ঘটনায় ক্ষুব্ধ স্বজনরা হাসপাতালে ভাঙচুর করেছে বলে অভিযোগ হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের।

শুক্রবার সকাল ৮টার দিকে হাসপাতালে ভর্তি অবস্থায় মারা যান তিনি। মৃত কামাল উদ্দিন জেলার সদর উপজেলার নোয়ান্নই ইউনিয়নের শাহজাদপুর গ্রামের আব্দুল হকের ছেলে। তিনি স্থানীয় ইসলামগঞ্জ বাজারের জারিফ এন্টারপ্রাইজের পরিচালক ছিলেন। ১ ছেলে ও ২ মেয়ের জনক তিনি।

মৃত কামাল উদ্দিনের ছোট ভাই জসিম উদ্দিন জানান, শুক্রবার ভোরে বুকে ব্যাথা অনুভব করে তাঁর বড় ভাই ব্যবসায়ী কামাল উদ্দিন। পরে মাদারল্যান্ড হাসপাতালের ম্যানেজারের সাথে যোগাযোগ করে একটি অ্যাম্বুলেন্স বাড়িতে এনে ৫টার দিকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয় তাকে। ভর্তির পর থেকে কামাল উদ্দিনকে কোন চিকিৎসা না দেয়ে ফেলে রাখে হাসপাতালে কর্মরত লোকজন। ডিউটি চিকিৎসক ও নার্সরা নিজ নিজ কক্ষে ঘুমাচ্ছে। একাধিকবার ডাকলেও তারা কেউ বের হয়ে আসেন নি। সকাল ৮টার দিকে কামাল মারা গেলে দ্রæত হাসপাতালের লোকজন পালিয়ে যান। পরে বিষয়টি থানায় জানানোর পর পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে। নিজের ভাইয়ের মৃত্যুর ঘটনায় একটি মামলা দায়ের করবেন বলেও জানান জসিম উদ্দিন।

এ বিষয়ে হাসপাতালের মার্কেটিং কর্মকর্তা জাবেদ বলেন, ওই রোগি আমাদের ম্যানেজারের আত্মীয়। তারা হাসপাতালে আসার পর এসি কেভিন চেয়েছিল। নরমাল কেভিনে ভর্তি করার পর নার্স রোগির হাতে ক্যানোলা লাগালে সাথে থাকা লোকজন ছিঁড়ে ফেলে দেয়। রোগিকে অক্সিজেনও দেওয়া হয়েছে। রোগি মৃত্যুর পর তার স্বজনরা হাসপাতালে ভাঙচুর করে ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি করেছে বলেও অভিযোগ করেন তিনি।

সুধারাম মডেল থানার পুলিশ পরিদর্শক (এসআই) সুজন বিকাস চাকমা জানান, চিকিৎসার অভাবে একজন রোগি মারা গেছে এমন অভিযোগের ভিত্তিতে আমরা হাসপাতালে এসেছি। অভিযোগের ভিত্তিতে পরবর্তীতে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর
© All rights reserved © 2021 bd-journalist.com
Theme Customized By newspadma.Com